বাহুবলে ডিএনআই মডেল হাই স্কুলে আন্দোলনের মুখে বঞ্চিতদের ভর্তির সিদ্ধান্ত-
ভর্তি বঞ্চিত শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের শহীদ মিনারে অবস্থান ধর্মঘট
বাহুবল প্রতিনিধি ॥ বাহুবলে জাতীয়করণের তালিকাভূক্ত দীননাথ ইনস্টিটিউশন সাতকাপন মডেল হাই স্কুলে ভর্তি বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে পিছু হটল কর্তৃপক্ষ। পূনরায় ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের ভর্তির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। গতকাল শনিবার অপরাহ্নে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বলে কমিটির অভিভাবক সদস্য অলিউর রহমান অলি ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক প্রণয় চন্দ্র দেব জানিয়েছেন। এর আগে সকাল ১০টা থেকে বঞ্চিত শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা বিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের পাদদেশে অবস্থান ধর্মঘট পালন করেন। এ প্রেক্ষিতে দুপুরে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি এক সভায় মিলিত হয়। কমিটির সভাপতি আব্দুর রেজ্জাকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় কমিটির সদস্যরা অংশগ্রহণ করেন।
আন্দোলনরত ছাত্র ও অভিভাবকরা বলেন, মনগড়া মতে ভর্তি পরীক্ষার নামে আড়াই শতাধিক শিক্ষার্থীর শিক্ষা জীবন অনিশ্চয়তার মধ্যে ফেলে দিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। উপজেলা সদরের আশপাশে ৫ বর্গকিলোমিটার এলাকায় আর কোন মাধ্যমিক বিদ্যালয় না থাকায় তারা পড়েছেন বিড়ম্বনায়। এ অবস্থায় ভর্তি বঞ্চিত শিক্ষার্থীদের ভর্তি করা না হলে প্রয়োজনে তারা বিদ্যালয় ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেবার হুমকিও দিচ্ছেন।
উল্লেখ্য, গত ৭ জানুয়ারি ওই বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে ভর্তিচ্ছুকদের জন্য ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ করে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ৬১৫ শিক্ষার্থী ফরম সংগ্রহ করলেও শেষ পর্যন্ত পরীক্ষায় অংশ নেয় ৫২১ জন। এর মধ্যে ৩৭৬ জনকে কৃতকার্য ঘোষণা করা হয়। অবশিষ্ট ১৪৫ জন অকৃতকার্য হয়। এছাড়া ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারেনি আরো শতাধিক শিক্ষার্থী।
শনিবার বিকেল ৫টায় এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক প্রণয় চন্দ্র দেব বলেন, আগামী ১৮ জানুয়ারি পূনরায় ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে ভর্তি হতে না পারা শিক্ষার্থীদের ভর্তি করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
-