মাধবপুরে যুবক খুন-
এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যাবার সময় এক ব্যক্তি আটক
স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাধবপুর উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামে পবিত্র শবে মেরাজের রাতে মসজিদের শিরনি বিতরণকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের টেটার আঘাতে হেলাল মিয়া (৩৫) নামের এক যুবক খুন হয়েছে। গত শনিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে উপজেলার বাঘাসুরা ইউনিয়নের ওই গ্রামে এ খুনের ঘটনা ঘটে। নিহত হেলাল মিয়া লক্ষ্মীপুর গ্রামের মরহুম ছনাই মিয়ার পুত্র। এ ঘটনায় হান্নান মিয়া (৪৬) নামে একজনকে আহত অবস্থায় আটক করেছে পুলিশ। আটক হান্নান একই গ্রামের সমুজ আলীর ছেলে।
নিহতের ছোট ভাই ফয়সল মিয়া জানান, পবিত্র শবে মেরাজ উপলক্ষে স্থানীয় নূরে মদীনা মসজিদে মিলাদের শিরনি বিতরণে বাধা দেয় কতিপয় যুবক। এ নিয়ে যুবকদের সাথে হেলাল মিয়ার কথা কাটাকাটি হয়। পরে মসজিদ থেকে বের হলে প্রতিপক্ষের লোকজন হেলালের উপর হামলা করে। এক পর্যায়ে তাদের ফিকলের আঘাতে হেলাল মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। রাত একটার দিকে স্বজনরা হেলালকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মিঠুন রায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
ডাঃ মিঠুন রায় জানান, নিহতের শরীরে একটা আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তিনি ধারণা করছেন ফিকলের আঘাতটা নিহতের হৃদযন্ত্রে লেগে থাকতে পারে।
মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী জানান, হেলালের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর পালিয়ে যাচ্ছিলেন হান্নান মিয়া। পরে ব্রাহ্মণডুরা এলাকাবাসী তাকে আটক করে মারপিট করে। ধারণা করা হচ্ছে তার হাত ও পা ভেঙ্গে গেছে। বর্তমানে সে পুলিশ হেফাজতে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ওসি আরো জানান, এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোনো মামলা দায়ের হয়নি। তবে পুলিশ তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে।

-
প্রথম পাতা