উমেদনগরে সরকারি খালের উপর নির্মিত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ শুরু করেছে প্রশাসন-
জুয়েল চৌধুরী ॥ হবিগঞ্জ শহরের উমেদনগরে সরকারি খালের উপর নির্মিত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান শুরু করেছে প্রশাসন। অভিযানের প্রথম দিনে অর্ধশতাধিক স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সজিব কান্তি রুদ্রের নেতৃত্বে প্রশাসনের কর্মকর্তারা উচ্ছেদ অভিযানে অংশ নেন। তাদেরকে সহযোগিতা করেন হবিগঞ্জ পৌরসভার কর্মচারি ও সদর থানার পুলিশ সদস্যবৃন্দ।
এর আগে এলাকাবাসির পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসকের নিকট অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের আবেদন করা হয়। আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ৩০ এপ্রিল জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবীর মুরাদ ওই খাল পরিদর্শন করেন এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছিলেন।
প্রসঙ্গত, অবৈধভাবে মাটি ভরাট ও গৃহ নির্মাণের মাধ্যমে দানিয়ালপুর থেকে কিবরিয়া ব্রীজ ও উমেদনগরের ভিতর দিয়ে কালারডোবা পর্যন্ত পানি নিস্কাশনের খালটি ভরাট করে রেখেছে প্রভাবশালীরা। ফলে সামান্য বৃষ্টিতেই জলমগ্ন হয়ে পড়ে ওই এলাকা। ২৫-৩০ ফুট প্রশস্ত একমাত্র পানি নিস্কাশনের ওই খালটি ভরাট করে ঘর নির্মাণের ফলে দৈনন্দিন পানি চলাচলসহ উমেদনগর শিল্প এলাকার অটো রাইচ মিলের পানিসহ এলাকার বাসা বাড়ির পানি নিষ্কাশন বাধাগ্রস্ত হচ্ছিল। উমেদনগর দক্ষিণ হাটির পশ্চিম হাওরে থাকা জমির অধিকাংশ ফসল প্রতি বছর নষ্ট হচ্ছে। তাছাড়া এলাকায় জলাবদ্ধতায় বিভিন্ন কবর খননকালে পানি উঠার কারণে লাশ দাফন করতে খুব অসুবিধা হচ্ছিল।
-