কোর্ট আন্দরে হযরত সৈয়দ আহম্মদ গেছুদারাজ (র:) লুতশাহের মাজারে ওরসে মিলাদ মাহফিল-
হযরত শাহ জালাল (রঃ) এর ৩৬০ আউলিয়ার অন্যতম সফর সঙ্গী ও তরফরাজ্য বিজয়ী মহান ইসলামী বীর পুরুষ সিপাহসালার (মদনী) হযরত সৈয়দ নাছির উদ্দিন (রঃ) সফর সঙ্গী ১২ আউলিয়ার অন্যতম আউলিয়া হযরত শাহ সৈয়দ আহম্মদ গেছুদারাজ (র:) লুতশাহ। যার পবিত্র শরীর জেলার বাহুবল উপজেলার মিরপুর ইউনিয়নের ঐতিহাসিক কোর্ট আন্দর গ্রামে খোয়াই নদীর তীরে চিরনিদ্রায় শায়িত। তার মাজার শরীফে প্রতিবছরের ন্যায় এবারো ৮, ৯ ও ১০ ফেব্রুয়ারি তিন ব্যাপী বার্ষিক ওরস অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওরসের দ্বিতীয় দিনে ৯ ফেব্রুয়ারি বাদ মাগরিব মাজার উন্নয়ন কমিটির সভাপতি মোঃ আমীর খান চান খাঁর তত্ত্বাবধানে কোর্ট আন্দর সাহেব বাড়ির উদ্যোগে আয়োজন করা হয় বিশেষ মিলাদ ও দোয়া মাহফিল। প্রতি বছর দেশের বিভিন্ন স্থান হতে হাজার হাজার আশেকান ভক্তবৃন্দরা ২/৩ দিন পূর্বেই দরবার শরীফে ওরস উপলক্ষে সমাগম হয়। এবার ওরসে কোর্ট আন্দর সাহেব বাড়ির মিলাদ ও দোয়া মাহফিল ছিল নিয়মের বিপরীতে এক ভিন্ন প্রচেষ্টা যা মাজারের পবিত্রতা রক্ষার দৃষ্টান্তস্বরূপ।
মিরপুর ইউনিয়নের বার বার নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম দেওয়ান সৈয়দ আব্দুল বাছিত এর চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকীতে তাঁর আত্মার মাগফেরাত কামনাসহ মাজার সংলগ্ন সাহেব বাড়ির পারিবারিক কবরস্থানের সকল মুর্দাগান, বিশেষভাবে স্মরণ করা হয় মরহুম দেওয়ান সৈয়দ আব্দুল মতিন সাহেব ও মরহুম দেওয়ান সৈয়দ আব্দুন নূর সাহেবকে।
মিলাদ মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন পীরজাদা সৈয়দ মাহমুদ জামিল, নুরুল আমীন শাহজাহান, মিরপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক দিদার এলাহী সাজু, দেওয়ান সৈয়দ আব্দুল বাছিত ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক পীরজাদা সৈয়দ মওদুদ আহমেদ, মুরুব্বী ফারুক মিয়া, মোঃ শামছু মিয়া, মোঃ আজিজুল ইসলাম রিপন, শাহ জুনাাঈদ আহমেদ রাজু, মোঃ শিপন, মোঃ সবুজ মিয়া, সোঃ সাচ্চু মিয়া প্রমুখ। 
উল্লেখ্য যে, হযরত সৈয়দ আহম্মদ গেছুদারাজ (রঃ) (লুতশাহ) তরফ বিজয়ের পর বাহুবলের কোর্ট আন্দরে খোয়াই নদীর তীরের নীচে শায়িত প্রথম মাজার শরীফ অবস্থিত। তরফ বিজয় যুদ্ধের সময় রাজা আচক নারায়নের আততায়ী এই মহান আউলিয়ার মস্তক ছিন্ন করলে তিনি শাহাদত বরণ করেন। ওই সময়ে তার ছিন্ন পবিত্র মস্তক খোয়াই নদীতে ভেসে বি-বাড়িয়া জেলার আখাউড়া উপজেলার খরমপুর গ্রামে তিতাস নদীর তীরে পৌঁছে এবং সেখানে আজ অবদি চিরনিদ্রায় শায়িত তার মস্তক মোবারক ‘কেল্লা শহীদ’ দরবার শরীফ হিসেবে পরিচিত। আখাউড়া উপজেলার খরমপুর কেল্লা শহীদ দরবার শরীফে দেশ-বিদেশের লাখ লাখ আশেকান ভক্তবৃন্দ দরবার শরীফের উন্নয়ন ও বার্ষিক ওরস পালন করছে।
বর্তমানে বাহুবলের কোর্ট আন্দরে হযরত সৈয়দ আহম্মদ গেছুদারাজ (রঃ) (লুতশাহ) শরীর মোবারকের মাজার শরীফ খানা রক্ষণাবেক্ষণ না করায় তা ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সার্বিক উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত রয়েছে। এলাকাবাসীর আশা কোর্ট আন্দর সাহেব বাড়ির সংশ্লিষ্টতায় এই মহান আউলিয়ার মাজার শরীফ অবহেলিত থাকবে না। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

-
প্রথম পাতা