প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুস্থ থাকলে দেশের মানুষ ভাল থাকবে-এমপি আবু জাহির-
স্টাফ রিপোর্টার ॥ স্বাধীনতার পর অনেক রাজনৈতিক দল সরকার গঠন করলেও দেশের উন্নতি হয়নি। তারা সৃষ্টি করেছে সাম্প্রদায়িকতা, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ। কিন্তু জাতির পিতার কন্যা জননেত্রেী শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন হয়েছে। সকল ধর্মের মানুষের মাঝে সৃষ্টি হয়েছে ভ্রাতৃত্ববোধ। আওয়ামী লীগ বিশ^াস করে- ধর্ম যার যার আর রাষ্ট্র সবার। এজন্যই দেশের মানুষ আজ শান্তিপূর্ণভাবে নিজেদের ধর্মীয় অনুষ্ঠান পালন করতে পারে।
শনিবার রাতে হবিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোঃ আবু জাহির শহরের কালিবাড়িতে বাসন্তী পূজা উৎসব পরিদর্শনকালে উপস্থিত সনাতন ধর্মাবলম্বী লোকজন ও দর্শনার্থীদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন।
আবু জাহির বলেন, বাংলাদেশের অগ্রগতি আজ দৃশ্যমান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে নিয়ে গেছেন উন্নয়নের মহাসড়কে। তিনি সুস্থ থাকলেই দেশের মানুষ ভাল থাকবে। এ সময় তিনি প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া এবং আশির্বাদ করতে সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।
পূজামন্ডপ পরিদর্শনকালে অন্যান্যের মাঝে সদর উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান মোতাচ্ছিরুল ইসলাম, কালিবাড়ি কার্যকরী কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট পূণ্যব্রত চৌধুরী বিভু, হবিগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট নিলাদ্রী শেখর পুরকায়স্থ টিটু, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের অ্যাডভোকেট নলিনী  কান্ত রায় নিরু, সাধারণ সম্পাদক শঙ্খ শুভ্র রায়, বাসন্তী পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি বিমল জ্যোতি চক্রবর্তী, সাধারণ সম্পাদক অনাথ বন্ধু তরফদার, পৌর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি পার্থ প্রতীম দাশ, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য অ্যাডভোকেট কনক জ্যোতি সেন রাজু, মোস্তফা কামাল আজাদ রাসেল প্রমুখ।
এর আগে এমপি আবু জাহির হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রতনপুরে বাসন্তী পূজামন্ডপ পরিদর্শনে যান। এ সময় সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোতাচ্ছিরুল ইসলাম, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুুল মুকিত, নিজামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জবেদ আলী মাস্টারসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
-