আমরা কতটা অসহায়?-
মোস্তফা ॥ পৃথিবী আজ স্তব্ধ হয়ে গেছে। অনেক দেশে একে অন্যের সাথে বিমান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে, আকাশে বিমান চলছে না, জলে জাহাজ চলছে না, রাস্তায় গাড়ি চলছে না, মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। মানুষ আজ সৃষ্টিকর্তার মুখোমুখি, প্রত্যেকটি মানুষ তার জ্ঞান-বিশ্বাস মতে উপাসনা করছে, ইবাদত করছে, দোয়া-দুরূদ পড়ছে, ক্ষমা প্রার্থনা করছে, ক্ষমা ভিক্ষা চাইছে, প্রাণ ভিক্ষা চাইছে। এই করোনা মানুষকে দেখিয়ে দিয়েছে তার সৃষ্টিকর্তার ক্ষমতা। সৃষ্টিকর্তার ক্ষমতার উপর সন্দেহ অবশ্য জগতের কোটি কোটি মানুষের নাই বা ছিল না। সৃষ্টিকর্তা অসীম দয়াশীল। এই মানুষ কেমন যেন, তা জানা সত্ত্বেও এড়িয়ে চলতো। চাক্ষুশ দৃষ্টান্ত সামনে আসায় মানুষ ভীত হয়েছে নিশ্চিতভাবে। ইংল্যান্ড বিশ্বের ক্ষমতাধর রাষ্ট্রগুলোর অন্যতম। এই রাষ্ট্রে একদিকে রাজতন্ত্র, আরেকদিকে গণতন্ত্র বিরাজমান। আমাকে যদি প্রশ্ন করা হয়, ইংল্যান্ডের শাসন ব্যবস্থা গণতান্ত্রিক না রাজতান্ত্রিক আমি বলতে পারবো না। গণতান্ত্রিক দেশ সমূহের মতো নির্বাচন হয় রাজনৈতিক দলের প্রধান যিনি, তিনি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। তিনি সব দেখেন। কিন্তু রাষ্ট্রপতি কেউ হন না। সবার উপরে বসে আছেন রানী এলিজাবেথ। আজ এই করোনায় আক্রান্ত যুবরাজ চার্লস, ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী সয়ং। রাজ, প্রজা, সরকার প্রধান থেকে রাস্তার পাড়া-কুড়ানোরা আজ সবাই সমান। ঠিক যেমনটি অসহায় হবে রাজা-প্রজা নির্বিশেষ রোজ হাশরে।

-