বুল্লা ইউপিতে সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী এক ডজন, আলোচনায় দু’জন

প্রথম পাতা

বাহার উদ্দিন, লাখাই থেকে ॥ ২২টি বিচ্ছিন্ন গ্রাম নিয়ে লাখাই উপজেলার বুল্লা ইউনিয়ন। শস্য ও মৎস্য ভান্ডার খ্যাত এই এলাকায় রয়েছে ছোট-বড় নানা সমস্যা। শিল্প-বর্জ্যে দূষিত সুতাং নদীও এখন বাসিন্দাদের জন্য অভিশাপ হয়ে দাঁড়িয়েছে।
জনগণের এমন দুর্ভোগ নিরসনে অনেকটা নিরব ভূমিকায় স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। তবে এরই মাঝে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের সম্ভাবনা দেখা দেয়ায় আটঘাট বেঁধে নেমে পড়েছেন এক ডজন সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী।
যদিও এবার সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীর সংখ্যা বেশি; তবে সাধারণ ভোটারদের সাথে কথা বলে জানা গেল, আসন্ন নির্বাচনে বর্তমান চেয়ারম্যান শেখ মুক্তার হোসেন বেনু’র সাথে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে পারে সাবেক ছাত্রনেতা ও বর্তমান আওয়ামী লীগ নেতা খোকন গোপের। অন্যদিকে প্রার্থী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছেন দুই সাংবাদিকও। তবে নির্বাচনের পূর্ব পর্যন্ত ক’জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় টিকে থাকবেন এনিয়ে কথা চলছে চুল চেড়া বিশ্লেষন।
বুল্লা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে এবার শোনা যাচ্ছে, বর্তমান চেয়ারম্যান ও জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ মুক্তার হোসেন বেনু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন চন্দ্র গোপ সৌরভ, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও ঢাকাস্থ যুবলীগ সহ সভাপতি অ্যাডভোকেট মোশারফ হোসেন শিপন, লাখাই প্রেসক্লাব সভাপতি অ্যাডভোকেট মোঃ আলী নোয়াজ, যুবলীগের সহ সভাপতি ও সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জাহারুল ইসলাম তাউছ, উপজেলা অনলাইন প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক সুমন আহমেদ বিজয়, জেলা জাসাসের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ টিপু, ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি মুক্তাদির হোসেন তালুকদার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি গিয়াস উদ্দিন, আওয়ামী লীগ নেতা অমূল্য চন্দ্র রায়, শেখ মোঃ মুর্শেদ কামাল, ইউনিয়ন কৃষক লীগের সভাপতি সবুজ মিয়ার নাম।
গতকাল শনিবার বুল্লা বাজারে বসে চা পান করছিলেন বয়োবৃদ্ধ তরমুজ আলী। তিনি দৈনিক খোয়াইকে বলেন, এলাকায় কিছু সমস্যা বিদ্যমান থাকলেও আশানুরূপ ভাল কাজ করেছেন বর্তমান চেয়ারম্যান শেখ মুক্তার হোসেন বেনু। তবে এবার সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে অ্যাডভোকেট খোকন গোপেরও সুনাম রয়েছে এলাকায়। তিনি পেতে পারেন সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সহানুভুতিও।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্কুল শিক্ষক দৈনিক খোয়াইকে বলেন, ভাটি বাংলার বড় একটি অংশ বুল্লা ইউনিয়ন। লাখাই উপজেলার অন্যান্য ইউনিয়নের লোকজনও এখানকার মাছ এবং ফসলের উপর নির্ভরশীল। সেই হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ইউনিয়ন এটি।
তিনি আরো বলেন, সুতাং নদীর শিল্প দূষণসহ বিভিন্ন কারণে দুর্ভোগ রয়েছে ইউনিয়নবাসী। এসব সমস্যার সমাধানে কাজ করায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এমন কাউকে এবার বুল্লা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত করা প্রয়োজন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *