শায়েস্তাগঞ্জ পৌর নির্বাচনে বিএনপির একক প্রার্থী, স্বতন্ত্ররা পর্যবেক্ষণে

প্রথম পাতা

মোঃ মামুন চৌধুরী ॥ শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভায় ২০১৫ সালে ৫ম পৌরসভা নির্বাচনে অল্প ভোটে পরাজিত হন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী এফএম আহমেদ অলি। সেই নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে জয়ী হয়েছিলেন মোঃ ছালেক মিয়া।
বিভিন্ন মিডিয়ার সূত্রে, চলতি বছরের ডিসেম্বরে অন্যান্য স্থানের ন্যায় শায়েস্তাগঞ্জ পৌরসভায়ও নির্বাচন হওয়ার কথা। এ নির্বাচনে এবারও আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী নানাভাবে মাঠে প্রচারণায় আছেন। এখানে বিএনপি থেকে একক প্রার্থী দেওয়া হবে বলে বিভিন্ন নেতাকর্মীর সাথে কথা হলে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।
আলাপকালে এ তথ্যের প্রমাণও দিলেন সাবেক মেয়র বিএনপি নেতা এমএফ আহমেদ অলি। তিনি বললেন স্থানীয় ও জেলা নেতাকর্মীদের কাছ থেকে আশ্বাস পেয়েছেন। শেষ সময় পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগীতা পেয়ে তিনি বিএনপি থেকে একক প্রার্থী হবেন। এজন্য তিনি সকলের কাছে সার্বিক সহযোগীতা ও দোয়া চেয়েছেন।
এদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার কথা শুনা যাচ্ছে নাট্যব্যক্তিত্ব সমাজসেবক জালাল উদ্দিন রুমী ও আমেরিকা প্রবাসী রকিব আহমেদের।
এছাড়াও নির্বাচনকে সামনে রেখে একাধিক স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিতে পারেন। নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্বতন্ত্র প্রার্থী বলেন, প্রবাসে বসে পর্যবেক্ষণ করছি। নিয়মনীতি মেনে সময়ে তৃণমূল মানুষের কাছে যাব। পৌর নাগরিকরা সচেতন। আমার বিশ্বাস তারা সৎ দক্ষ ও নিরপেক্ষ লোককে মেয়র নির্বাচিত করবেন।
খোয়াইয়ে সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পর এ প্রতিবেদকের সাথে কথা হয় আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক পৌর প্যানেল মেয়র রাহেল মিয়া সরদার, জেলা ছাত্রলীগ নেতা সাবাসপুরের সন্তান সামিউর রহমান রুমেলের।
তারা জানান, দলের কাছে মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন চাইবেন। তাদের উভয়ের আশা দল তাদেরকে নিরাশ করবে না।
অনেকের মন্তব্য এমন প্রচারণায় শায়েস্তাগঞ্জ থেকে করোনা ভাইরাস সরে যাচ্ছে। তবে শহরের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করে দেখা গেছে করোনা ভাইরাসের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি তেমন কেউ মেনে চলছেন না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *